৬৮
লোকেশন
১১১
আর্টিকেল
১২০
গ্রুপ ট্যুর
২০০০০+
গ্রুপ মেম্বার
ডিম পাহাড় এক মেঘের রাজ্য
লেখকঃ


সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে প্রায় ২৮০০ ফুট উচূ এই পাহাড়। এই পাহাড়ের উপর দিয়ে তৈরী করা হয়েছে বান্দরবান জেলার আলীকদম – থানচি সড়ক যার দৈর্ঘ্য ৩৩ কি.মি.। এটি দেশের সর্বোচ্চতম রাস্তা। আলীকদম থেকে থানচি যাওয়ার পথে ২২ কি.মি. এলাকাটিই ডিম পাহাড় নামে পরিচিত।

আমার বাড়ি আলীকদম সদরে হওয়াতে প্রায় সময় মেঘের রাজ্য ডিম পাহাড়ে যাওয়া হয়। ছোট ভাই এবং বন্ধুরা অনেকেই ছুটিতে বাড়িতে আসার ফলে হঠাৎ প্লান করলাম ডিম পাহাড়ে যাব। প্লান মোতাবেক সকাল ৭ টায় আমরা একটা গাড়ি নিয়ে রওনা দিলাম৷ ১৫ মিনিট পর ১০কি.মি. এলাকায় সেনা চেক পোস্ট এ গিয়ে সবাই আইডি/জন্মনিবন্ধন এর ফটোকপি জমা দিয়ে এট্রি করে আবার রওনা দিলাম। মোট ৪০ মিনিটে আমরা পৌঁছে গেলাম দেশের সর্বোচ্চতম রাস্তা ও মেঘের রাজ্য ডিম পাহাড়ে।

সকালে যাওয়ার সুবাদে সেখানে তেমন বাতাস ছিলো না তাই খুব কাছাকাছি মেঘ ছিলো। যত বেলা হয় তত মেঘ দূরে চলে যায়। মেঘ দেখার জন্য পারফ্যাক্ট সময় হলো খুব ভোরে, প্রচন্ড রোদ এর পর হঠাৎ বৃষ্টি এসে যখন বৃষ্টি থামে আর সুর্যাস্তের সময়। এই ডিম পাহাড়ের চুড়া থেকে পৃথিবীর কত সুন্দর তা না দেখলে কেউ বুঝবে না। এভাবে ২ ঘন্টা ওখানে কাটানোর পর আমরা চলে এসেছি।

যেভাবে যাবেন : ঢাকা-চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার যাওয়ার পথে চকরিয়া পৌর বাস টার্মিনাল নেমে চাঁদের গাড়ি বা বাস যোগে আলীকদম বাসষ্টেশন নেমে রিক্সা বা টমটম যোগে পানবাজার যেতে হবে। পানবাজার থেকে ভাড়া চলিত মোটরসাইকেল ও চাঁদের গাড়ি পাওয়া যায়। ভাড়া করার সময় অবশ্যই দামদর করে উঠবেন।

ঢাকা থেকে সরাসরি আলিকদমের বাস হানিফ আর শ্যামলী আছে ভাড়া ৮৫০ টাকা।

জয়েন গ্রুপ- ছুটি ট্রাভেল গ্রুপ