৬৮
লোকেশন
১১১
আর্টিকেল
১২০
গ্রুপ ট্যুর
২০০০০+
গ্রুপ মেম্বার
ছুটি রিসোর্ট, গাজিপুর
লেখকঃ


অফিস থেকে বন্ধ বা ইউনিভার্সিটির সেমিস্টার ব্রেক! ঢাকার অদূরে গ্রামীন পরিবেশে ঘুরে আসতে চাইছেন? এই ছুটিতে বেড়িয়ে আসতে পারেন ছুটি রিসোর্ট থেকে। গাজীপুরের জয়দেবপুরে আমতলীর সুকুন্দি গ্রামে ৫০ বিঘা জমির উপরে গরে তোলা হয়েছে এই রিসোর্টটি, যা ভাওয়াল রাজবাড়ি থেকে ৩ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত এবং ঢাকা থেকে এর দূরত্ব ৩৭ কিলোমিটার।

এখানে সারাদিন শুনতে পাওয়া যায় ভাওয়াল বনের পাখির কলরব, সন্ধায় শেয়ালের ডাক, জোনাকির আলো। আর পূর্নিমার রাতে রিসোর্টের নিয়ম অনুযায়ী বৈদ্যুতিক আলো জ্বালানো হয় না! অর্থাৎ ভরা পূর্নিমা বা বর্ষা বা শীতযাপনের জন্যে ছুটি রিসোর্ট হতে পারে অন্যতম পছন্দের জায়গা। পরিবার, বন্ধুবান্ধব নিয়ে ঘুরে বেড়ানো, থাকা-খাওয়া এবং বিনোদনের নানানরকম ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। ভিতরে আছে বড় মাঠ, যার চারপাশ ঘিরে বিশাল দিঘী। যেখানে রয়েছে নৌভ্রমনের ব্যবস্থা।

এখানে চাইলে ফিশিং করা যাবে লেকে। আছে ফুটবল, ব্যাডমিন্টন, ক্রিকেট খেলার ব্যবস্থাও। আছে সুইমিং পুল, বারবিকিউ কর্নার, মিনি জু। বাচ্চাদের জন্যে আছে কিডস জোন। আর চাইলে তাবু খাটিয়ে থাকবার ব্যবস্থাও আছে। এছাড়া এখানে আরো কিছু ব্যাপারস্যাপার আছে, যেমন অফিশিয়াল মিটিং বা ওয়ার্কশপ এরেঞ্জ করবার ব্যবস্থা আছে। ওয়ার্কশপ মিটিং-এর জন্যে রয়েছে ২০০ সিটের একটি মিটিং রুম, আর আছে ১০০ সিটের একটি ওয়ার্কশপ রুম। আছে বিজনেস সেন্টার ও ৭৫টি গাড়ি পার্কিং-এর সুবিধা।

খাবারদাবারঃ অতিথীদের এখানে নানারকম মৌসুমী ফল দেয়া হয় উপহার হিসেবে। আয়োজন করা হয় বিভিন্ন ধরনের ওরিয়েন্টাল ও কন্টিনেন্টাল খাবার । সাথে আছে বারবিকিউয়ের সুবিধা।

থাকার ব্যবস্থা ও খরচাপাতিঃ এখানে থাকার জন্যে আছে বিভিন্ন রকমের কটেজ, যেমন- কাঠের কটেজ, ফ্যামিলি কটেজ, প্রিমিয়াম, সেমি-প্রিমিয়াম ও রয়েল কটেজ। কটেজগুলো ভাড়া– কাঠের কটেজের ভাড়া ৪৫০০ টাকা ।
ফ্যামিলি কটেজের ভাড়া ১৪০০০ টাকা।
প্লাটিনাম কিং কটেজের ভাড়া ৮০০০ টাকা।
ডিলাক্স টুইন কটেজের ভাড়া ৬০০০টাকা।
প্রিমিয়াম টুইন কটেজের ভাড়া ৭০০০ টাকা।
প্রিমিয়াম ডিলাক্স ভিলার ভাড়া ৯০০০ টাকা।
রয়েল সুট ১৭০০০ টাকা।
ডুপ্লেক্স ভিলা ৬০০০ টাকা।
ভাওয়াল কটেজের ভাড়া ৮০০০ টাকা।

এগুলোর সাথে ভ্যাট ও সার্ভিস চার্জ যোগ হয়ে ভাড়া আরো খানিকটা বেশি পরবে। আর ডরমেটরীতে থাকতে চাইলে জনপ্রতি সিট ভাড়া ১ হাজার টাকা। কনফারেন্স রুমের ভাড়া ২০হাজার থেকে ৫০হাজার টাকা। পিকনিক করতে চাইলে ১০০ থেকে ২০০ জনের ভাড়া ৯০হাজার টাকা। খাওয়া সহ সারাদিনের খরচ ১২০০ টাকা।

কীভাবে যাবেন? ঢাকার গুলিস্তান বা মহাখালী থেকে যেকোনো বাসে প্রথমে যাবেন গাজীপুর শহরে। সেখান থেকে রিক্সা নিয়ে আমতলী বাজার। আমতলী বাজারের সাথেই ছুটি রিসোর্ট।

বুকিং-এর জন্যঃ +8801777114488, +8801777114499, +8801951537777, +8801951508888
ঠিকানাঃসুকুন্দি, আমতলী, জয়দেবপুর, গাজীপুর (গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে ৭.৫ কিলোমিটার দূরে)
ইমেইলঃ info@chutibd.com
ওয়েবসাইটঃ http://chutiresort.com
ফেসবুক পেজঃ https://www.facebook.com/chutiresort

জয়েন গ্রুপ- ছুটি ট্রাভেল গ্রুপ